November 13, 2019

Banner Here

  •  
  •  
  •  

ঝিনাইদহে ডিবিসি নিউজের জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রহমান মিল্টন ও স্থানীয় দেশেরবাণী পত্রিকার প্রতিনিধি জহির হোসেনকে মারধর করেছে নামধারী দুই সন্ত্রাসী জহুরুল ইসলাম হিরো ও শামীমুল ইসলাম শামীম সহ ১৫/২০ জন। ।

শনিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে শহরের এইচএসএস সড়কে অবস্থিত সাংবাদিক অফিসে এ ঘটনা ঘটে। এসময় অফিস ভাংচুর করে মোবাইল ও ল্যাপটপ, ক্যামেরা, কম্পিউটার সিপিউ ছিনিয়ে নিয়ে যায় হামলাকারীরা। আহতদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত দুই সাংবাদিকের অবস্থা গুরুতর।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ডিবিসি টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রহমান মিল্টন ও স্থানীয় দেশেরবাণী পত্রিকার প্রতিনিধি জহির হোসেন রাতে অফিসে বসে ছিলেন। এসময়  জহুরুল ইসলাম হিরো ও শামীমুল ইসলাম শামীমের নেতৃত্বে সেখানে এসে হামলা চালায়। তারা ওই দুই সাংবাদিককে ব্যাপক মারধর করে মোবাইল ও ল্যাপটপ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। অফিসের কম্পিউটার, টেলিভিশন ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে। খবর পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা ও পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহত সাংবাদিক মিল্টন জানান, জহুরুল ইসলাম ও শামীম নামের দুই ব্যক্তি অফিসে এসে বলেন ‘তোরা কিসের এত নিউজ করিস’। এ বলেই তারা মারধর করে।

এ ঘটনায় ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম. রায়হান ও সাধারণ সম্পাদক নিজাম জোয়ারদার বাবলুসহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন।

খবর পেয়ে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস, র‌্যাব ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান হামলার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের আশ্বাস দেন।

ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস জানান, আমাদের কাছে বেশ কয়েকজনের নাম এসেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুতই আটক করা হবে।

শহরের আজাদ রেস্ট হাউজের সামনে সাংবাদিকদের এই অফিসটিতে যমুনা টেলিভিশন ও ইনডিপেনডেন্ট পত্রিকার প্রতিনিধি আহমেদ নাসিম আনসারী, একাত্তর টিভির প্রতিনিধি রাজিব হাসান, দেশ টেলিভিশনের আল আমিন সজলসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা বসে থাকেন।

image_print

Theme.Com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


     আরও সংবাদ

Add