November 13, 2019

Banner Here

  •  
  •  
  •  

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আধিপত্য নিয়ে আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০জন আহত হয়েছে। এসময় বাড়ীঘর ও দোকানপাট ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় জমির কয়েকশত কলাগাছ কেটে নষ্ট করেছে প্রতিপক্ষরা। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের কদমতলা, কেষ্টপুর ও লক্ষনদিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতরা বর্তমানে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতলে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ^াস জানান, জেলার শৈলকুপা উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান সাব্দার হোসেন মোল্লা এবং ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি পরাজিত ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজানুর রহমান বাবুলের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো।

তারই জের ধরে আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে বিএলকে বাজার থেকে আওয়ামীলীগের দু-গ্রুপের কর্মী সমর্থকেরা গ্রাম্য অস্ত্র-শস্ত্রে নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় সংঘর্ষটি কয়েকটি গ্রামে ছড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে মতিউর রহমান, শফিউর রহমান, ফারুক বিশ্বাসকে সাঈদ, শাহিদুল, মতিয়ার তারিক, হিরু, ফজলু, বাচ্চুসহ ১০ জনকে শৈলকুপা হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লীনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

পরে দুপুর ১২টার দিকে এ হামলার জের ধরে উভয় গ্রুপের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে কয়েকটি বাড়ীঘর, দোকানপাট ভাংচুর ও কলাগাছ কেটে নষ্ট করে সংঘর্ষকারীরা।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের জন্য সেসব এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে তিনি আরও জানান।

image_print

Theme.Com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


     আরও সংবাদ

Add